image-113455-1511850853

দ্রুত ওজন কমায় বাঁধাকপি

BDcost Desk:

ওজন নিয়ে দুশ্চিন্তায় ভোগেন না এই পৃথিবীতে এমন লোক খুবই কম আছে। সাধারণত অস্বাস্থ্যকর খাদ্যাভ্যাস, নিয়মিত ব্যায়াম না করা, হরমোনের ভারসাম্যহীনতা, মানসিক চাপ ইত্যাদি কারণে ওজন বাড়ে। আর এই ওজন কমাতে ডায়েট ও ব্যায়াম খুব গুরুত্বপূর্ণ। তবে দ্রুত ওজন কমাতে চাইলে খাদ্য তালিকায় প্রথমেই রাখুন বাঁধাকপি। শীতকালীন সবজিগুলোর মধ্যে বাঁধাকপি এমন একটি সবজি, যা খেলে দ্রুত ওজন কমে। আবার এটি শুধু সহজলভ্যই নয়, দামেও সস্তা।

পুষ্টিবিদরা বলেন, অনেক পুষ্টিগুণের সমাহার হলো বাঁধাকপি। সবজিটি নানা ধরনের ভিটামিনে সমৃদ্ধ। আছে প্রচুর পরিমাণ আঁশ। ক্যালশিয়াম, আয়রন, সালফার, ফসফরাসসহ আছে প্রয়োজনীয় সব খাদ্য উপাদান। গবেষণায় দেখা গেছে, ডায়াবেটিস রোগীদের জন্যও বাঁধাকপি খুবই উপকারী। এটি রেডিয়েশনের বিরুদ্ধে কাজ করে। এ কারণে ক্যান্সার প্রতিরোধ হয় এবং হৃদরোগের ঝুঁকিও কমে আসে।

বাঁধাকপির স্বাস্থ্য উপকারিতা-

ওজন কমায়
বাঁধাকপিতে টারটারিক অ্যাসিড রয়েছে। চিনি ও শর্করা রূপান্তর হয়ে শরীরে যে চর্বি জমে, টারটারিক অ্যাসিড এই চর্বি জমতে বাধা দেয়। এছাড়া এতে খুব সামান্য পরিমাণে কোলেস্টেরল এবং প্রচুর পরিমাণে খাদ্যআঁশ রয়েছে। তাই যারা ওজন কমাতে চান তারা প্রতিদিনের খাদ্য তালিকায় বাঁধাকপি রাখুন।

ভিটামিনের সমৃদ্ধ উৎস
বাঁধাকপিতে শরীরের জন্য প্রয়োজনীয় প্রায় সব ধরনের ভিটামিনই রয়েছে। এতে রয়েছে রিবোফ্লোভিন, প্যান্টোথেনিক অ্যাসিড, থায়ামিন, ভিটামিন বি৬, ভিটামিন সি ও কে।

হাড় ভালো রাখে
বাঁধাকপি হাড় ভালো রাখতে সহায়তা করে। এতে প্রচুর পরিমাণে ক্যালসিয়াম, ফসফরাস ও সোডিয়াম যা হাড়ের বিভিন্ন সমস্যা দূর করে। এছাড়াও বাঁধাকপিতে উপস্থিত ভিটামিন হাড়কে মজবুত রাখতে সাহায্য করে। যাঁরা নিয়মিত বাঁধাকপি খান তাঁদের বার্ধক্যজনিত হাড়ের সমস্যার সম্ভাবনা হ্রাস পায়।

মাথাব্যথা দূর করে
যাদের মাঝেমধ্যেই মাথা ধরে, তারাও প্রতিদিন অন্তত একবেলা হলেও বাঁধাকপি খান। দেখবেন মাথাব্যথা দূর হবে।

রক্তস্বল্পতা দূর করে
বাঁধাকপিতে প্রচুর আয়রন থাকায় তা রক্তস্বল্পতা দূর করতে ভূমিকা রাখে।

আলসার নিরাময়ে
পাকস্থলির আলসার ও পেপটিক আলসার প্রতিরোধে বাঁধাকপি অনেক উপকারী। স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের সাম্প্রতিক এক গবেষণায় দেখা গেছে, বাঁধাকপির রস আলসারের জন্য সবচেয়ে উপকারী প্রাকৃতিক ওষুধ।

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়
বাঁধাকপি রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে সহায়তা করে। গবেষণায় দেখা গেছে, যারা নিয়মিত বাঁধাকপি খান তাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা অন্যদের তুলনায় অনেক বেশি। বাঁধাকপিতে উপস্থিত ভিটামিন সি ও মিনারেল রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে সহায়তা করে।

ত্বকের সুরক্ষায়
বাঁধাকপিতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি রয়েছে, যা ত্বকের সমস্যা দূর করে। নিয়মিত বাঁধাকপি খেলে ত্বকে সহজে বয়সের ছাপ পড়ে না। এছাড়া বাঁধাকপিতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট যা ক্যান্সার প্রতিরোধেও সহায়তা করে।

বাঁধাকপির যে স্যুপ দ্রুত ওজন কমায়-
উপকরণ
এই স্যুপ বানাতে বাঁধাকপি পাতা এক কাপ, পেঁয়াজ তিন থেকে চারটি কাটা টুকরো এবং গোলমরিচের গুঁড়া এক চা চামচ।

প্রস্তুত প্রণালী
প্রথমে প্রেসার কুকারে বাঁধাকপির পাতা ও পেঁয়াজের মধ্যে কিছু পানি দিয়ে সেদ্ধ করুন। এতে স্বাদমতো লবণ দিন। সেদ্ধ বাঁধাকপি ও পেঁয়াজে একটু আদা কুচি মেশান। এতে গোলমরিচের গুঁড়া দিন, এরপর বাটিতে ঢালুন। ব্যস, খুব সহজেই তৈরি হয়ে বাঁধাকপির স্যুপ। স্যুপটি প্রতিদিন সকালের নাশতায় কমপক্ষে দুই মাস খান। এই স্যুপ খেলে দেখবেন দ্রুত ওজন কমবে। অবশ্য এর পাশাপাশি স্বাস্থ্যকর খাবার এবং ব্যায়ামও চালিয়ে যাওয়ার বিকল্প নেই।

বিঃ দ্রঃ রেসিপি, স্টাইল, রূপচর্চা, গৃহসজ্জা, টেকনোলজি ও ইসলামিক জীবন, ইত্যাদি। বাংলা ব্লগ রেগুলার আপনার ফেসবুক টাইমলাইনে পেতে লাইক দিন আমাদের ফ্যান পেজ বিডিকষ্ট্

Tags: ,

There are no comments yet

Why not be the first

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Anti-Spam Quiz: