omellete-1342848429

ওজন কমাতে সকালের নাশতায় ডিম খাওয়ার ৫ কৌশল

BDcost Desk:

সকালের নাশতায় ডিম খেলে যে দ্রুত ওজন কমে, এই কথা এখন সর্বজনবিদিত। কেবল যে ফিটনেস এক্সপার্টরা এমন বলেন, সেটা নয়। বিজ্ঞানীরা রীতিমত গবেষণা করে প্রমাণ করেছেন যে, প্রতিদিন সকালের নাশতায় সবজি বা ফলের সাথে একটি ডিম সম্পূর্ণ আহারের পুষ্টি দেয় শরীরকে। মেটাবলিজম বাড়াতেও সহায়ক।

সকালে একটি ডিম অনেকটা সময় পেট ভরা থাকার অনুভূতি যোগায়। ফলে সারাদিনের অতিরিক্ত ক্ষুধা ও অধিক ক্যালোরিযুক্ত খাবার খেয়ে ফেলার বাজে প্রবণতাকে নিয়ন্ত্রণ করে। তাই যারা ডায়েট করছেন, সকালের নাশতায় একটি ডিম বা ডিমের সাদা অংশ অবশ্যই রাখবেন।

কিন্তু প্রশ্ন হচ্ছে, ওজন কমানোর জন্য ডিমটা খাবেন কীভাবে? ডুবো তেলে পোচ করে ফেললেন কিংবা মাখন দিয়ে ঝাল ঝাল অমলেট করে নিলেই কি হবে? না, একদম না! যদি ওজন কমাতে চান, তাহলে ডিম খেতে হবে সঠিকভাবে। ডিমে যদি বাড়তি তেল-ঘি যোগ করেন, তাহলে ওজন কমার চাইতে বরং বাড়বে বেশি। তা ছাড়া পুষ্টি উপাদান ঠিক রাখার ব্যাপারটাও মাথায় রাখতে হবে।

আজ জানিয়ে দিচ্ছি কীভাবে ডিম খেলে তা ওজন কমাতে সহায়ক।

পানি পোচ
ডিম পোচ করে খেতে কোনও অসুবিধা নেই ঠিকই, কিন্তু সেটায় তেল ব্যবহার করা যাবে না একটুও। তেলের বদলে পানিতে ডিম পোচ করে নিন। একটি পাত্রে পানি দিন, পানি ফুটে উঠলে আঁচ একটু কমিয়ে দিন। এরপর একটি চামচ দিয়ে পানিটা নেড়ে দিন, যেন পানির মাঝে একটু ঘূর্ণি ওঠে। আস্তে করে সেই ঘূর্ণির মাঝে ডিম ছেড়ে দিন। কিছুক্ষণের মাঝেই দেখবেন ডিমের বাইরের অংশটা সাদা হয়ে গেছে। ২/৩ মিনিট পর উঠিয়ে হালকা গোলমরিচ ও লবণ ছিটিয়ে নিন। কুসুম যত বেশি শক্ত খেতে চাইবেন, তত বেশি সময় পানিতে রাখবেন।

নরম সেদ্ধ
ডিমকে যদি খুব বেশি সেদ্ধ করা হয়, তাহলে এর পুষ্টি উপাদান কমতে থাকে। তাই সবটুকু পুষ্টি পেতে ডিম ‘সফট বয়েল’ খাওয়াই উত্তম। গরম পানিতে দেয়ার পর তিন থেকে সাত মিনিট পর্যন্ত ডিম সেদ্ধ করতে পারেন, ঢাকনা দিয়ে। এর চাইতে বেশি সেদ্ধ করা উচিৎ নয়।

বেক করা ডিম
ননস্টিক কাপ কেকের প্যান নিন। এতে প্রতি খোপে একটি করে ডিম দিন। সামান্য লবণ ও গোলমরিচ ছিটিয়ে দিন। ওভেনে ৪/৫ মিনিট বেক করে পরিবেশন করুন।

ডিমের স্যুপ
হাঁড়িতে পানি বা চিকেন স্টক ফুটতে দিন। ডিম ফেটে নিয়ে সেই পানিতে আস্তে আস্তে ঢেলে দিন। ভালো করে নাড়ুন। কর্ণ স্যুপের মতন চেহারা হয়ে যাবে। চাইলে সামান্য কর্ণ ফ্লাওয়ার গুলে দিয়ে ঘন করে নিতে পারেন। লবণ, গোলমরিচ গুঁড়ো, সাদা সিরকা, সয়াসস ইত্যাদি যোগ করুন নিজের স্বাদ অনুযায়ী।

তেল ছাড়া অমলেট
ডিম যেভাবে অমলেট খেতে ভালোবাসেন, সেভাবেই কাঁচামরিচ-পেঁয়াজ ও অন্যান্য মশলা দিয়ে ফেটে নিন। এবার একটা ননস্টিক কেক তৈরির প্যানে এই মিশ্রণ ঢেলে ওভেনে বেক করে নিন সেদ্ধ হওয়া পর্যন্ত। চাইলে মাইক্রোওয়েভেও দিতে পারেন। ব্যস, তৈরি হয়ে গেল আপনার তেল ছাড়া অমলেট! এতে চাইলে হরেক রকমের সবজিও যোগ করা যায়।

বিঃ দ্রঃ রেসিপি, স্টাইল, রূপচর্চা, গৃহসজ্জা, টেকনোলজি ও ইসলামিক জীবন,ইত্যাদি। বাংলা ব্লগ রেগুলার আপনার ফেসবুক টাইমলাইনে পেতে লাইক দিন আমাদের ফ্যান পেজ বিডিকষ্ট্

Tags: ,

There are no comments yet

Why not be the first

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Anti-Spam Quiz: